গজারিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত বৃদ্ধের মৃত্যু, আটক ২

নিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:৫৮ PM, ০২ জানুয়ারী ২০২৩

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় সীমানা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনায় গুরুতর আহত বৃদ্ধ মানিক মিয়া ১২ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর রোববার রাতে মারা গেছে। সোমবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে। বৃদ্ধ মানিক মিয়া (৭০) উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের বড় রায়পাড়া গ্রামের মৃত চাঁন মিয়ার ছেলে।

অন্যদিকে মারধরের ঘটনায় আহত সালেহা বেগম বাদী হয়ে গজারিয়া থানায় অভিযোগ দাখিল করেন। রোববার রাতে মানিক মিয়া মারা যাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে সোমবার ভোরে অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় পুলিশ বিল্লাল হোসেন ও মায়া বেগম নামে দুজনকে আটক করেছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের পরিবার জানায়, সীমানা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী সালেহা বেগমের সাথে প্রতিবেশী জালাল মিয়ার পরিবারের বিরোধ চলছিল। নিহত মানিক মিয়া সম্পর্কে সালেহা বেগমের বিয়াই। বাড়ির সীমানা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সালেহা বেগমের সাথে বেশ কয়েকবার জালাল মিয়ার স্ত্রী মায়া বেগমের ঝগড়াঝাঁটি হয়েছে। সর্বশেষ গত ২০ ডিসেম্বর দুপুরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষে জড়ায় উভয়পক্ষ। এসময় সালেহা বেগমের বিয়াই নিহত মানিক মিয়া ও তার ছেলে নুরুন্নবী সালেহা বেগমকে রক্ষায় এগিয়ে আসেন। এসময় মায়া বেগমও তার বেয়াই সাবেক ইউপি সদস্য বিল্লাল হোসেনকে খবর দেন। বিল্লাল হোসেন ১৪-১৫ জনের দল নিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা প্রতিপক্ষের লোকজনকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে। পরে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরন করে।

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, সংঘর্ষ ও হামলার ঘটনায় মানিক মিয়া, তার ছেলে নুরুন্নবী ও বিয়াইন সালেহা বেগম নামের ৩ জনকে আহতবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে আসে। আহতদের মধ্যে মানিক মিয়ার অবস্থা খারাপ ছিল। পিটিয়ে তার ডান হাত ভেঙে ফেলা হয় এবং গায়ের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন ছিল। তাকে হাসপাতালে ভর্তি দেওয়া হয়েছিল। বাকি দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

মানিক মিয়ার ছেলে নুরুন্নবী জানান, গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঢাকা পঙ্গু হাসপাতাল হাসপাতালে দীর্ঘ ১২ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারনে তাকে বাসায় নিয়ে আসা হয়। রোববার দিবাগত রাত চারটার দিকে বাসায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে মারা যান তিনি।

গজারিয়া থানার ওসি মোল্লা সাহেব আলী জানান, এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। অপর আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে। এছাড়া সোমবার সকালে বৃদ্ধের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :