ব্যক্তিত্ব পরিচিতি

বিক্রমপুরের গর্ব অধ্যাপক ডাঃ বদিউজ্জামান ভূইয়া ডাবলু

Submitted by Editor on Sun, 09/10/2017 - 07:45

তাইজুল ইসলাম উজ্জ্বল:- মুন্সিগঞ্জ, বিক্রমপুরের গর্ব অধ্যাপক ডাঃ বদিউজ্জামান ভূইয়া ডাবলু। তার জন্ম ১৯৫৫ সালের ১৬ই জুলাই শ্রীনগর উপজেলার দামলা গ্রামের একটি সম্ভ্রান্ত পরিবারে(ভূইয়া)।তার পিতার নাম মরহুম আফাজউদ্দিন আহ্ম্মেদ ভূইয়া ও মাতা নাতেকা ভূইয়া। বদিউজ্জামান ভূইয়ারা মোট ৬ভাই ও ৪ বোনের পরিবার। তাদের পরিবারে ২৩ জন ডাক্তার রয়েছেন যা কিনা বাংলাদেশের অন্য কোনো পরিবারে আছেকিনা খুজে পাওয়া মুসকিল।

বিক্রমপুরের গর্ব বিজ্ঞানী স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু

Submitted by Editor on Sun, 08/06/2017 - 17:30

মাহবুব আলম জয় : প্রাচীন সভ্যতার জনপদ মুন্সীগঞ্জ তথা বিক্রমপুর। এই জনপদে অংসখ্য বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ জন্মরগ্রহণ করেন। যারা এই ভূমিতে জন্মগ্রহণ করে নিজেদের কর্মে বিক্রমপুর মুন্সীগঞ্জকে উজ্জ্বল করেছেন  তাদের মধ্যে অন্যতম স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু।  তিনি মুন্সীগঞ্জ তথা বিক্রমপুরের রাঢ়ীখাল গ্রামে   ১৮৫৮ সালের ৩০  নভেম্বর জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতা ভগবানচন্দ্র বসু ছিলেন ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট।  জগদীশ চন্দ্র বসু একজন বাঙালি পদার্থবিদ, উদ্ভিদবিদ ও জীববিজ্ঞানী এবং প্রথম দিকের একজন কল্পবিজ্ঞান রচয়িতা।

মুন্সিগঞ্জের কৃতি সন্তান ক্রিকেটার গাজী আশরাফ হোসেন লিপু

Submitted by Editor on Tue, 06/13/2017 - 07:17

মুন্সিগঞ্জের টুডে ডেস্ক : ঐতিহাসিক মুন্সিগঞ্জ তথা বিক্রমপুরে অসংখ্য গুনিদের জন্ম। ইচ্ছাশক্তি আর অধ্যাবসায়ে এই জনপদের যে সকল কৃতি সন্তান বিশ্বমানচিত্র এ দেশকে এনে দিয়েছেন সম্মান তাদেরই একজন দেশ বরেণ্য খেলোয়ার (জন্ম জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটার ও অধিনায়ক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু। তিনি ১৯৬০ সালের ২৯ ডিসেম্বর ঢাকায়। জন্মগ্রহণ করেন। তার পৈত্রিক মুন্সিগঞ্জ জেলাধীন লৌহজং উপজেলায়। উইকিপিডিয়া ও বিভিন্ন তথ্য সূত্রে জানা যায় তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পক্ষ হয়ে প্রথম সাতটি একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেন। তন্মধ্যে ছিল – ১৯৮৬ সালের জন প্লেয়ার গোল্ড লীফ ট্রফিতে দুইটি ও ১৯৮৮ সালের এশিয়া

বিক্রমপুরের গর্ব ডাঃ বদিউজ্জামান ভূইয়া ডাবলু

Submitted by Editor on Thu, 06/08/2017 - 10:31

তাইজুল ইসলাম উজ্জ্বল:- বিক্রমপুরের(মুন্সিগঞ্জ)কৃতী সন্তান অধ্যাপক ডাঃ বদিউজ্জামান ভূইয়া ডাবলু। তার জন্ম ১৯৫৫ সালে ১৬ই জুলাই শ্রীনগর উপজেলার দামলা গ্রামের একটি সম্ভ্রান্ত পরিবারে(ভূইয়া)।তার পিতার নাম মরহুম আফাজউদ্দিন আহ্ম্মেদ ভূইয়া ও মাতা নাতেকা ভূইয়া।আফাজ নাতেকাবদিউজ্জামান ভূইয়ারা মোট ৬ভাই ও ৪ বোনের পরিবার। তাদের পরিবারে ২৩ জন ডাক্তার রয়েছেন যা কিনা বাংলাদেশের অন্য কোনো পরিবারে আছেকিনা খুজে পাওয়া মুসকিল।