শ্রীনগরে বালাশুর-মাওয়া ও ভাগ্যকূল-কামাড়গাও সড়কের বেহাল দশা

Submitted by Editor on Thu, 07/13/2017 - 08:53
বেহাল রাস্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক:- শ্রীনগর  উপজেলার বালাশুর-মাওয়া সড়ক যথা সময়ে সংস্কার কাজ না করায় এখন বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। ফলে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে জনসাধারণকে।এদিকে সড়কটি দ্রুত সংস্কারের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

জানা গেছে,উপজেলার বালাশুর চৌরাস্তা-ভাগ্যকূল হয়ে মাওয়া সড়কটি যথাসময়ে সংস্কার কাজ না হওয়ায় সড়কের বিভিন্ন স্থানে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের।

কয়েক দিন টানা মৌসুল ধারে বৃষ্টি হওয়ার ফলে সড়কে থাকা গর্তগুলোতে পানি জমে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন শিক্ষার্থী,বয়োবৃদ্ধ ব্যক্তি ও যাতায়াতকারী রোগীরা।

শীঘ্রই সড়কটি সংস্কার কাজ করে জনসাধারণের দূর্ভোগ লাগব করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন এবং বর্তমান সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

ভাগ্যকূল অটোরিকশা চালক সমিতির ক্যাশিয়ার রাসেল বলেন, পেটের কারনে ঝুঁকি নিয়ে অনেক অটোরিকশা শ্রমিক এই বেহাল সড়কে অটোরিকশা চালায় এবং প্রতিনিয়ত কোন না কোন দূর্ঘটনা স্বীকার হতে হচ্ছে তাদের।

রাস্তাঘাট

                  ভাগ্যকূল বাজার সড়ক

ভাগ্যকূল হরেন্দ্রলাল স্কুল এন্ড কলেজের এক শিক্ষার্থী বলেন সড়কের গর্ত গুলোতে বৃষ্টির পানি জমে থাকার ফলে যাতায়াতের অনেক সমস্যা হচ্ছে আমরা ঠিকমত স্কুলে আসতে পারছি না। শ্রীনগর উপজেলার মধ্যে অন্যতম বাজার ভাগ্যকূল বাজার। ভাগ্যকূল বাজারের একজন ব্যবসায়ী বলেন আমাদের বাজারে ঢোকার রাস্তার বেহালদশা, আমরা ঠিক ভাবে মালপত্র আনা নেয়া করতে পারছিনা এবং বাজারের ভেতরকার রাস্তার বেহাল দশার ফলে ক্রেতা শুন্য বাজারি এক হিসেবে বলা চলে।

অপরদিকে ভাগ্যকূল হরেন্দ্রলাল স্কুল এন্ড কলেজের পেছনের ভাগ্যকূল-কামাড়গাও সড়ক যানবাহন চলাচলের জন্য বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ভাগ্যকূল-কামাড়গাও সড়ক ঘুরে সরজমিনে দেখাযায় রাস্তার পিচ উঠে যাচ্ছে, কোথাও কোথাও গর্ত হয়ে পানি জমে গেছে। ভুক্তভোগী এলাকাবাসীরা জানান ১২/১৫ দিন হয়েছে এই রাস্তা পিচ ঢালাই করা হয়েছে এরি মধ্যে রাস্তা যাতায়াতের জন্য বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। রাস্তার বেহাল দশার জন্য এলাকাবাসী সড়ক নির্মাণ কারি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের উদাসিনতাকেই দোসছেন।

এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করে দ্রুত সড়ক টি সংস্কারের জোর দাবি জানান।

bigapon